পণ্য রপ্তানি হবে ই-কমার্সে

0
8
পণ্য রপ্তানি হবে ই-কমার্সে

এখন থেকে অনলাইন শপিং কোম্পনিগুলো নিয়মিত ব্যাংকিং চ্যালেনলের মাধ্যমেই বিদেশী ব্যক্তি পর্যায়ের ক্রেতাদের কাছেও পন্য রপ্তানির সুযোগ পাবেন। সোমবার এ বিষয়ে একটি নির্দেশনা জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। যেখানে বলা হয়েছে, এই চ্যানেলে ব্যাংক অনুমোদিত ডিলার হিসেবে কাজ করবে এবং একটি অর্ডারের মাধ্যমে সর্বোচ্চ পাঁচ হাজার ডলার পর্যন্ত লেনদেন করা যাবে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের এই নির্দেশনা তাদের জন্যে অন-লাইন কেনাকাটার ব্যবসার জন্যে একটি বড় দিগন্ত উম্মোচন করবে।ই-ক্যাবের মহাসচিব আবদুল ওয়াহেদ তমাল বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংক দীর্ঘদিন পর হলেও এমন একটি উদ্যোগ নিয়েছে যা ই-কমার্সের জন্য সুখবরই বটে।

ই-কমার্স খাত এর ফলে দেশের সীমানা ছাড়াতে পারবে। দেশের অন্যতম ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান বাগডুম ডটকমের এক্সিকিউটিভ চেয়ারম্যান এবং বেসিসের সাবেক সভাপতি শামীম আহসান জানান, দেশের বাইরে থেকে অনলাইনে যারা দেশিয় পণ্য কেনেন তাদের বেশিরভাগই স্বজনদের জন্য গিফট কেনেন। তারা ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমেই কেনাকাটা করেন। বাংলাদেশ ব্যাংক যে উদ্যোগ নিয়েছে সেটা অবশ্যই সাধুবাদ পাবার যোগ্য।

তিনি আরও বলেন, অনলাইনে মানুষ কেনাকাটা করে কোন ধরনের ঝামেলা পোহাতে চায় না বলে। বাংলাদেশ ব্যাংকের মাধ্যমে যদি কেনাকাটা করে দ্রুত ও সহজেই পণ্য ক্রেতারা হাতে পায় তবেই এর সার্থকতা। সেদিকে অবশ্যই দৃষ্টি রাখতে হবে। তবে এমন ব্যবস্থা ই-কমার্সের জন্য অবশ্যই সুখবর। যেহেতু এটি চালু হলো, অবশ্যই আগামী কয়েক বছরের মধ্যে দেশের গণ্ডি পেরিয়ে ই-কমার্সকে আরও ছড়িয়ে দিতে এটি ভূমিকা রাখবে।

এইদিকে ব্যাংকের নির্দেশনা বলছে, অনলাইনের মাধ্যমে বিক্রেতা এবং ক্রেতা পর্যায়ের রপ্তানিকে উৎসাহ দিতেই এই পরিবর্তন আনা হল।তবে এক্ষেত্রে ব্যাংকগুলোর অবশ্যই বিক্রেতা বা অনলাইন দোকানগুলোর সঙ্গে মার্চেন্ট বিষয়ক চুক্তি থাকতে হবে। আর এসব বিষয়ে ব্যাংকগুলোই বাংলাদেশ ব্যাংকে নিয়মিত প্রতিবেদন দেবে।