গুগল,ফেসবুক, ইউটিউবের বিরুদ্ধে রাজস্ব ফাঁকির অভিযোগে লিগ্যাল নোটিশ

0
30

গল, ফেসবুকসহ অন্যান্য ইন্টারনেটসেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর রাজস্ব ফাঁকির অভিযোগে লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছেন ব্যারিস্টার মোহাম্মদ হুমায়ন কবিরসহ সুপ্রিম কোর্টের ৬ আইনজীবী । শনিবার ইমেইল ও কুরিয়ারের মাধ্যমে এ নোটিশ পাঠানো হয়েছে বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।
গুগল,ফেসবুক, ইউটিউব
অর্থ মন্ত্রাণালয়, আইন মন্ত্রাণালয়, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রাণালয় এবং তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রাণালয়ের সচিব, বাাংলদেশ ব্যাংকের গর্ভনর, এনবিআরের চেয়ারম্যান, বিটিআরসির চেয়ারম্যান, প্রথম আলো সম্পাদক ও বাংলাদেশ নিউজ পেপারস ওনারস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মতিউর রহমান, গুগল, ফেসবুক, ইয়াহু এবং ইউটিউবকে কর্তৃপক্ষ বরাবর এ নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

ব্যারিস্টার হুমায়ন কবির বলেন, প্রযুক্তির যুগে গুগল, ফেসবুক এখন প্রাত্যহিক জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ। ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা এখন সোশ্যাল মিডিয়ার প্লাটফর্মে বিজ্ঞাপন দেখতে আগ্রহী। দিন দিন এর ব্যবহার বাড়ছে। বাড়ছে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা। এ সুযোগে বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করে এ দেশ থেকে কোটি কোটি ডলার নিয়ে যাচ্ছে ইন্টারনেট সংশ্লিষ্ট বিশ্বের নামীদামি প্রতিষ্ঠানসমূহ। কিন্তু সরকারকে এক টাকাও রাজস্ব দিচ্ছেনা তারা।

তিনি বলেন, প্রতি বছর কত টাকা বিজ্ঞাপন বাবদ বিদেশে পাচার হচ্ছে তার সঠিক কোন হিসাব নেই সরকারের কোন প্রতিষ্ঠানের কাছে। কারন বিজ্ঞাপন দাতারা তাদের অর্থ পরিশোধ করছে ক্রেডিট কার্ড ও অন্যান্য অনলাইন প্রযুক্তির মাধ্যমে। তাই সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে দ্রæত পদক্ষেপ গ্রহনের জন্য লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

গুগল, ইয়াহু, এমাজন, ইউটিউব, ফেসবুককে দেওয়া সকল বিল হতে বাংলাদেশের আইন অনুযায়ী প্রযোজ্য রাজস্ব কর্তন করার জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর এবং জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যানকে ব্যবস্থা নিতে বলা হয় নোটিশে। সেইসঙ্গে রাজস্ব কর আদায়ের লক্ষে সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা জারী করার জন্যও অনুরোধ হয়।

সরকারকে বলা হয়, একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন করে রাজস্ব ফাঁকির বিষয়টি তদন্ত করতে। এছাড়া গুগল, ইয়াহু, এমাজন, ইউটিউব, ফেইসবুক প্রতিষ্ঠান সমূহকে তাদের গত ১০ বছরের বকেয়া রাজস্ব বাংলাদেশ সরকারের কোষাগারে ফেরত পাঠানোর জন্য বলা হয় নোটিশে।